জামি‘আ পরিচিতি

পটভূমি

মূলত একদল হকপন্থী ওলামায়ে কেরাম তৈরীর প্রয়োজনীয়তা সেদিন গভীরভাবে অনুভব করেছিলেন কলোনীবাসী। তৎকালীন কড়াইল টি এন্ড টি কলোনীর সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দ্বীনি জযবা, মেহনত, আত্মত্যাগ এবং সর্বোপরি আমাদের সকলের কার্যনির্বাহক মহান আল্লাহ তায়ালার গায়েবী সাহায্যে ০৫-০১-১৯৯৪ ইং তারিখে তাক্বওয়া, তাওয়াক্কুল, তালিম ও তাজকিয়ার বুনিয়াদের উপর বনানী বিটিসিএল জামি‘আ মুহাম্মাদিয়া ইসলামিয়া প্রতিষ্ঠিত হয়।

কড়াইল বিটিসিএল জামে মসজিদের প্রাক্তন ইমাম মরহুম আব্দুর রশিদ সাহেব অত্র জামিয়া’ প্রতিষ্ঠায় বিশেষ অবদান রাখেন।

  • ১২-০১-২০০১ ইং তারিখে তৎকালীন টি এন্ড টি বোর্ড কর্তৃক মাদরাসা ও মাদরাসা ভবনের নকশার অনুমোদন প্রদান করা হয়।
  • ২৭-০১-২০০১ ইং তারিখে তৎকালীন টি এন্ড টি বোর্ড এর মাননীয় চেয়ারম্যান মরহুম খন্দকার আব্দুল মতিন অত্র মাদরাসার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।
  • ২-১১-২০০১ ইং তারিখে মাদরাসা ভবন নির্মাণ কাজের শুভসূচনা হয়।
  • জুন ২০০২ ইং নকশা অনুযায়ী জামি‘আ ভবন নির্মাণ কাজ ধারাবাহিক শুরু হয়।

 

মাদরাসা পরিচালনা কমিটিসমূহের (প্রতিষ্ঠা হতে অদ্যাবধি)

সভাপতি, সেক্রেটারী ও একাডেমিক বিষয়াদির সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

১ম ও প্রতিষ্ঠাতা কমিটি

সভাপতিঃ জনাব শামসুল হক

সেক্রেটারীঃ জনাব মুহাম্মাদ শাহজাহান

চালুকৃত জামাত/ ক্লাস সমূহঃ ইবতেদায়ী-১ হতে কাফিয়া জামাত পর্যন্ত

মোট ছাত্র সংখ্যাঃ ১৬০ জন

২য় কমিটি

সভাপতিঃ জনাব আমিনুল হক মিয়া, পরিচালক , বিটিটিবি

সিনিয়র সহ-সভাপতিঃ মরহুম আবুল বাশার

সেক্রেটারীঃ জনাব ছিদ্দিকুর রহমান

চালুকৃত জামাত/ ক্লাস সমূহঃ ইবতেদায়ী-১ হতে শরহেজামী জামাত পর্যন্ত

মোট ছাত্র সংখ্যাঃ ১৮৪ জন

৩য় কমিটি

সভাপতিঃ জনাব গোলাম কিবরিয়া তালুকদার, পরিচালক, বিটিটিবি

সিনিয়র সহসভাপতিঃ জনাব মুহাম্মদ জিয়াদুল আনাম, পরিচালক , বিটিসিএল

সেক্রেটারীঃ জনাব কাজী ফজলুল হক, ডিজিএম, টেলিটক

চালুকৃত জামাত/ ক্লাস সমূহঃ ইবতেদায়ী-১ হতে মিশকাত জামাত পর্যন্ত

মোট ছাত্র সংখ্যাঃ ৩৩০ জন

৪র্থ কমিটি

সভাপতিঃ জনাব মুহাম্মদ জিয়াদুল আনাম, পরিচালক , বিটিসিএল

সিনিয়র সহ-সভাপতিঃ জনাব নুরুজ্জামান খাঁন, উপ-পরিচালক (প্রশাসন) উঙঞ

সেক্রেটারীঃ জনাব খান মোঃ আতাউর রহমান, ডিজি, টেলিকম স্টাফ কলেজ, বিটিসিএল

চালুকৃত জামাত/ ক্লাস সমূহঃ ইবতেদায়ী-১ হতে ইফতা জামাত পর্যন্ত

মোট ছাত্র সংখ্যাঃ ৫৪২ জন

জামিআর অবস্থান

ব্যস্ততম নগরী ঢাকার বনানীস্থ বি.টি.সি.এল কলোনীর স্যাটেলাইট অফিস সংলগ্ন কোলাহলমুক্ত ও সম্পূর্ণ নিরিবিলি পরিবেশে বিটিসিএল জামি‘আ মুহাম্মাদিয়া ইসলামিয়া অবস্থিত।

জামিআর বৈশিষ্ট্য

বিটিসিএল জামি‘আ মুহাম্মাদিয়া ইসলামিয়া ঢাকা শহরের একটি উচ্চ মানের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়।

জামি‘আর পক্ষ থেকে শিক্ষা ছাড়াও এতিম, অসহায়, মেধাবী ছাত্রদের ফ্রি থাকা-খাওয়া, চিকিৎসা, কিতাবপত্র প্রদানসহ যাবতীয় সহযোগিতা করা হয়। উন্নত শিক্ষা পদ্ধতির মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে কুরআন, হাদীস, ফিক্হ, উসূল, আকাইদ ইত্যাদি বিশদভাবে পড়ানো হয়। এ ছাড়াও বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস, ভূগোল, গণিত, বিজ্ঞান ইত্যাদি বিষয় বিশেষভাবে শিক্ষা দেওয়া হয়।

ছাত্র পাঠাগার : ধারাবাহিক শিক্ষাক্রমের পাশাপাশি ছাত্রদের বহুমুখী জ্ঞান অর্জন এবং দেশ ও জাতির সমকালীন ও আন্তর্জাতিক অবস্থা সম্পর্কে অবগতি লাভের জন্য বিভিন্ন বিষয়ের ওপর তথ্যবহুল বই-পুস্তক সমৃদ্ধ একটি উঁচু মানের পাঠাগার রয়েছে। ছাত্ররা নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী বই পুস্তক সংগ্রহ করে যুগোপযোগী বিভিন্ন প্রকারের জ্ঞান অর্জন করতে সক্ষম হয়।

শিক্ষা বিভাগসমূহ

বর্তমানে চারটি প্রধান বিভাগ রয়েছে:

১. মক্তব / নাজেরা বিভাগ: এ বিভাগে শিশু-প্রকৃতির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ বিজ্ঞানভিত্তিক নূরানী পদ্ধতিতে আবশ্যকীয় মাসায়েল, দোয়া, কালিমা, উযু, নামায ইত্যাদির বাস্তব প্রশিক্ষণসহ পবিত্র কুরআন শরীফ সহীহ-শুদ্ধরূপে পড়তে সক্ষম করে তোলা হয়। অর্থ সহকারে চল্লিশটি হাদীসের প্রশিক্ষণ, সুন্দর ও সহীহ-শুদ্ধরূপে কুরআন শরীফের আমপারা মুখস্থ করিয়ে দেওয়া হয়। তৎসঙ্গে সহজ পদ্ধতিতে প্রাথমিক বাংলা, ইংরেজি ও গণিত শিক্ষা দেওয়া হয়।

২. হিফজ বিভাগ: এ বিভাগে মক্তব / নাজেরা থেকে পাস করা শিশু-কিশোরদেরকে অনূর্ধ্ব চার বছরে পূর্ণ কুরআন শরীফ উত্তমরূপে হিফজ করানো হয় এবং আন্তর্জাতিক মানের হাফেজে কুরআনরূপে গড়ে তুলতে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হয়।

৩. কিতাব বিভাগ:  এটি জামি‘আর প্রধান বিভাগ। এ বিভাগে সুবিন্যস্ত শ্রেণী পদ্ধতিতে প্রয়োজনীয় বাংলা, ইংরেজি ও গণিতসহ কুরআন, হাদীস, ফিকহ, আক্বায়েদ, আদব, বালাগাত ও হিকমত ইত্যাদি বিষয়ে পূর্ণ পারদর্শী করে গড়ে তোলা হয়। এ সব বিষয়ে উত্তীর্ণ ছাত্ররা মাওলানা উপাধি লাভ করে।

৪. আততাখাসসুস ফিল ফিক্হি ওয়াল ইফতা

এ বিভাগটি অত্যাধুনিক দারুল ইফতার সকল আয়োজন নিয়ে অভিজ্ঞ মুফতীগণের সার্বক্ষণিক তত্ত¡াবধানে পরিচালিত। কিতাব বিভাগের সর্বোচ্চ ক্লাস দাওরায়ে হাদীসে কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় কমপক্ষে  প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ ছাত্রগণই কেবল এ বিভাগে ভর্তির সুযোগ পায়। এ কোর্সের মাধ্যমে আলেমদেরকে যুগ সমস্যার সমাধানে যোগ্যতাসম্পন্ন করে তোলা হয়। এ কোর্সে উত্তীর্ণ ছাত্ররা ‘মুফতী’ সনদ লাভ করে।

এ বিভাগ থেকে মানুষের ব্যক্তিগত, পারিবারিক ও সামাজিক বিভিন্ন অবস্থা ও পরিস্থিতিকে শরীয়তের দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার-বিশ্লেষণ করে যাবতীয় সমস্যার ইসলামী সমাধান প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য যে, উক্ত বিভাগের মাধ্যমে সরাসরি ফতওয়া লাভের পাশাপাশি অনলাইনে সারা বিশ্ব থেকে মানুষ দীনি বিষয়ে সমধান জানতে পারে। এ উদ্দেশ্যে মাদরাসার নিজেস্ব ওয়েব সাইটে রয়েছে প্রশ্ন-উত্তর বিভাগ। অন লাইনে ফতওয়া জানতে ভিজিট করুন:

www.jamiamohammadiabanani.com

 

অন্যান্য কার্যক্রম ও কর্মসূচি:

১.গণপ্রশিক্ষণ: জামি‘আ একদিকে যেমন ধর্মীয় জ্ঞানসম্পন্ন সুযোগ্য আলিম তৈরির অন্যতম প্রতিষ্ঠান, অপরদিকে তা সর্বসাধারণের ধর্মীয় দীক্ষার একটি উন্মুক্ত কেন্দ্র। এ কর্মসূচির আওতায় মসজিদভিত্তিক ২১ দিনব্যাপী বয়স্কক্লাস চালু করে জামি’আর পক্ষ হতে প্রত্যহ এক ঘণ্টা করে বিজ্ঞানভিত্তিক ‘নূরানী বয়স্ক ট্রেনিং’ এর ব্যবস্থা করা হয়। এ কোর্সের মাধ্যমে মাত্র ২১ দিনে সর্বস্তরের কর্মব্যস্ত জনসাধারণ অতি সহজে পবিত্র কুরআন শরীফ, কালিমা, প্রয়োজনীয় দোয়া-মাসায়েল ইত্যাদি সহীহ-শুদ্ধরূপে শিক্ষা লাভ করে থাকে।

২. দাওয়াত ও তাবলীগ: এ কর্মসূচির আওতায় ছাত্রদেরকে ইসলামী যিন্দেগী গঠন ও সমাজে দীনি দাওয়াত প্রদানের বাস্তব প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

৩. প্রতিযোগিতামূলক বক্তৃতা প্রশিক্ষণ : কুরআন হাদীসের জ্ঞান অর্জনের পর সর্বসাধারণের মাঝে দ্বীনের সঠিক দাওয়াতের ব্যাপক প্রসারের যোগ্যতা অর্জনের জন্য ছাত্রদের বাগ্মিতা অর্জনের লক্ষ্যে জামি‘আয় প্রতিযোগিতামূলক সাপ্তাহিক বক্তৃতা প্রশিক্ষণ এবং বিশেষ বিশেষ দিবস উপলক্ষে বিষয়ভিত্তিক সেমিনার, বিতর্ক অনুষ্ঠান ও বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষ বিশেষ প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা রয়েছে।

৪. দেয়াল পত্রিকা : ইসলামী সাহিত্যের নির্মল জ্যোতি বিকিরণের মহান লক্ষ্য নিয়ে ছাত্রদের কলম সৈনিকরূপে গড়ে তোলার জন্য বাংলা, আরবি ও ইংরেজি দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ করা হয়।

৫. আমলী প্রশিক্ষণ: লেখাপড়ার পাশাপশি শিক্ষার্থীদেরকে সবরকম যোগ্যতাসম্পন্ন করে গড়ে তোলার জন্য বিশেষ তরবিয়তের ব্যবস্থা করা হয়। তন্মধ্যে একটি বিশেষ বিষয় হচ্ছে আমলী প্রশিক্ষণ। নিজেদের নামায সহীহ করে নিয়ে সমাজে নামাযের সহীহ আমলী প্রশিক্ষণ করতে পারে এটাই নামায প্রশিক্ষণের মূল লক্ষ্য। এমনিভাবে পবিত্র কুরআন শরীফের তেলাওয়াত সুন্দর থেকে সুন্দরতম ও বিশুদ্ধতম করার লক্ষ্যে তিলাওয়াত প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা রয়েছে। পাশাপশি সুন্নত তরীক্বায় আযান-ইক্বামাত প্রভৃতি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দান করা হয়। এ ছাড়াও জামি‘আর মসজিদে বিভিন্ন আমলের আমলী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়।

৬. কম্পিউটার প্রশিক্ষণ : বর্তমান যুগে কম্পিউটার মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস। এটা ছাড়া জীবন চলাই অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই আইটি বিভাগটি খোলা হয়েছে। এই বিভাগে নিয়মিত দুইজন প্রশিক্ষক রয়েছেন। বর্তমানে ছাত্ররা নির্ধারিত কম্পিউটার ক্লাসে আইটি বিষয়ক বিভিন্ন কোর্সে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছে।

শিক্ষা ক্ষেত্রে জামিআর সাফল্য

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করার ফলে অতি অল্প সময়ে এ প্রতিষ্ঠানটির সুনাম ও সুখ্যাতি দেশের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে পড়ে। সার্বিক বিবেচনায় এ প্রতিষ্ঠানটি উলামায়ে কেরাম ও সুধিমহলের নিকট বিশেষভাবে সমাদৃত হয়। সুদক্ষ ও অভিজ্ঞ শিক্ষকমণ্ডলীর আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলে এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশ কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের (বেফাক) অধীনে অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় পরীক্ষাসমূহে বিভিন্ন স্তরে সর্বোচ্চ মেধা তালিকা অর্জনের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে চলেছে। তাছাড়া জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় জামি‘আর ছাত্ররা বিশেষ কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে চলেছে এবং বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের প্রচেষ্টায় বহু বই-পুস্তক ও স্মারক ইত্যাদি প্রকাশিত হয়ে জামি‘আর সাফল্যের পাল্লাকে আরও ভারী করেছে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনাসমূহ

(ক) এক বছর মেয়াদি তাখাস্সুস ফিত তাফসীর বিভাগ চালু করা।

(ক) দুই বছর মেয়াদি তাখাস্সুস ফি উলূমিল হাদীস বিভাগ চালু করা।

(খ) এক বছর মেয়াদি ইফতা বিভাগকে দু’বছরে উন্নীত করা।

(ঘ) এক বছর মেয়াদি আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ চালু করা।

الجامعة المحمدية الإسلامية

كرائيل، بى تى سى إيل (تي إند تي) كالوني، بنـاني، داكا - 1213، بنغلاديــش


 

تعريفها       أهدافها       نشاطاتها       خطواتها

 

 

بسم الله الرحمن الرحيم

الحمد لله وحدَه، والصلاة والسلام على من لا نبي بعدَه، وبعدُ : فقد قال سيدنا أبو بكر الصديق -رضي الله عنه- : أينقص الدينُ وأنا حيٌّ؟

أمّةَ الإسلام

ما أحوج المسلمين اليوم إلى من يردُّ عليهم إيمانَهم بأنفسهم، وثقتـَهم بماضيهم وتراثهم، ورجاءَهم في مستقبلهم، وإلى من يردّ عليهم إيمانَهم الكامل بهذا الدين المتين الذي يحملون اسمه، ويجهلون كنهَه!

كذلك ما أحوجهم إلى من ينتشر في الأرض بمشعل الدعوة الإيمانية مع تمام اليقين والإخلاص! فيذكّرهم بتلك الرسالة المباركة الخالدة التي جاء بها النبي الإمي الكريم –عليه ألف ألف تحية وتسليم- ثم ينقذهم من المهانة والذُّلّ في الدنيا، ومن العذاب السرمدي في الآخرة

خلفية التأسيس

بقلوب ملأها الحزنُ والآسى والخوفُ والفزعُ نعبِّر عن غموم مضمرة في أنفسنا بأن الظروف  السائدة في العالم الإسلامي –علمًا وثقافةً، وفكرًا وعقيدةً، واجتماعًا وسياسةً- فوضوية بحيث لا تقرّ بها العيونُ، ولا تطيبُ بها النفوسُ، ولا تطمئنُّ بها القلوبُ؛ لأن أعداء الإسلام والمسلمين قاموا على قدمٍ وساقٍ للقضاء عليه وعليهم، لاسيما في دولتنا بنغلاديش - البعيدة عن مهبط الوحي- التي صارت الآن هدفًا لهم حيث أن المنظمات المسيحية والبعثات التبشيرية وتتبعها نشاطات العلمانية والقاديانية قد استغلّت الأزمات الإقتصادية والجهل العام عن الدين في نشر عقائدهم الباطلة وأفكارهم الهدامة بين عامة المسلمين

فإذن الله تعالى لمواجهة هذه الأوضاع الخطيرة ولإحباط تحدّياتهم الراهنة عن طريق الدعوة إلى الله تعالى بسلاح العلم والبصيرة أسّست هذه الجامعة وسط مدينة داكا عاصمة بنغلاديش -توكلًا على الله تعالى- عام 1994 م

فبحمد لله تعالى وبفضله أن الجامعة قد قطعت شوطا مجيدًا في سيرها نحو غاياتها المنشودة حتى صارت من أكبر مؤسسات علمية وأهمها ومركزًا من مراكز الثقافة الدينية، تمتاز بمناهجها الدراسية ونظومها الراقية من بين الجامعات في الدولة، وانجازت انجازات عظيمة ونالت اعترافا وتشجيعا من الشخصيات الإسلامية البارزة في داخل الدولة و خارجها، وفي طوال خدماتها قد تخرّجت قوافل من الدعاة إلى الله اشتغلوا في مختلف مجالات خدمة العلم والدين، ولله الحمد أوّلا وآخرًا

ففي السطور التالية نقدِّم لحضرتكم صورةً وجيزةً عن تعريف الجامعة وأهدافها ونشاطاتها ومشاريعها

تعريف الجامعة

إن الجامعة المحمدية الإسلامة جامعة دينية عريقة غير حكومية، أسِّستْ -على التقوى من أوّل يومها- لبثّ الخدمات الدينية الجليلة عن طريق التعليم والدعوة والإرشاد بين الشعب المسلم. وتقدت الجامعة إلى منشودتها الغالية منذ تأسي

الاسم: الجامعة المحمدية الإسلامية

موقعها : كرائيل، بي تي سي ايل (تي إند تي) كالوني، بناني، داكا

التأسيس : 1994م

المدير : الأستاذ/ المفتي محمد نعمان -حفظه الله ورعاه

عدد الأساتذة والمؤظفين: 50

:الأقسام والشعب

(1) قسم الكتّاب: يتعلم فيه الأطفال المسلمون العلوم الإبتدائية الأساسية خلال مدة سنتين (على منهج هيئة تعليم القرآن النورانية)

(2) قسم تحفيظ القرآن الكريم: يحفظ فيه الطلاب الصغار القرآن الكريم كاملًا أثناء مدة سنتين أو ثلاث سنوات، ويدرس في هذا القسم زهاء مائة وخمسين طالبًا تحت إشراف ستة حفّاظ مهرة.

(3) قسم الدراسات الإسلامية: يشمل هذا القسم جميع المراحل المدرسية: الإبتدائية، المتوسطة، الثانوية، النهائية ومرحلة تكميل الأحاديث النبوية

(4) قسم التخصّص في الفقه والإفتاء: هذه الشعبة من أزهى شعب الجامعة، وفيها مجموعة جمّة من المصادر والمراجع العلمية المعتمدة من كتب التفسير والحديث والفقه والفتوى والتاريخ. ويشرف عليها عصابة من الأساتذة المهرة والمفتيين الكرام الذين يقومون بواجب الإفتاء وحلِّ قضايا الشعب المسلم على ضوء الكتاب والسنة، وبأداء مسئولية تمرين المسائل والفتاوى بكلّ جدٍّ واهتمامٍ بين الدارسين فيها والباحثين.

(5) قسم النشر والإشاعة: إتمامًا لفائدة الشعب المسلم ينشر تحته رسائل مفيدة ومقالات متنوّعة عند الضرورة والمناسبة

(6) قسم الصناعة:  وفقًا لمقتضيات العصر الراهن قامت الجامعة بتعليم الكمبيوتر بين أبناءها في الأوقات الخارجة 

عقيد تها ومسلكها

الجامعة تتمسك بعقيدة ومسلك السلف الصالحين من أهل السنة والجماعة اعتصاما بالكتاب والسنة، وسيرا على الطريق الذي أرشد إليه الرسول -صلى الله عليه وسلم- في كلامه الجامع "ما أنا عليه وأصحابي"، فلبثّ هذه العقيدة والأفكار بين المسلمين تبذل الجامعة قصارى جهدها بكلّ طريقٍ ممكن 

منهجها التعليمي: منهج الدرس النظامي الجاري في قسط واسعٍ من المعمورة منذ قرونٍ مع إضافة ما لا يستغني عنه المجتمع الحاضر من العلوم العصرية

:أهدافها

للجامعة أهداف مهمة ومنشودات سامية، لم تزل الجامعة -منذ بدايتها- حريصة على تنفيذها وتطبيقها على وجه أحسن

  • تأهيل الأجيال الناشئة لمواجهة التحديات الفكرية ضدّ الإسلام وأهله
  • بذل غاية الوسع والجهد في نشر العلوم الدينية والثقافة الإسلامية بين المسلمين أجمعين
  • غرس العقيدة الإسلامية الصحيحة -عقيدة أهل السنة والجماعة من سلف هذه الأمّة- في قلوب الشعب المسلم، وقمع البدع والخرافات عن المجتمع
  • غرس روح الفكر الإسلامي وإيقاظ الوعي الديني في قلوب الناس، وإرشادهم عن طريق الدعوة إلى الجادّة المستقيمة
  • ترغيب المسلمين في الاعتناء البالغ بالحضارة الإسلامية والآداب الدينية والأخلاق
  • القيام بالدعوة الإسلامية إلى كلّ طبقات البشر، وتنشيط حركات التعليم والتبليغ كتابة وخطابة
  • إخراج الشخصيات البارزة الذين يسعون لحلّ قضايا المسلمين بسلاح العلم على بصيرة تامّة   

:النشاطات الثقافية

قسم المحاضرات والخطابات (فى اللغة الوطنية والعربية والإنكلزية)

لغرض تنمية مواهب الطلاب الكامنة، وتأهيلهم للأمور الدعوية والعلمية يتم عقد حفلات أسبوعية تحت إشراف "مكتبة العرفة للطلاب"  للمحاضرات والخطابات باللغة الوطنية والعربية والإنكلزية، كي يتسنى لهم القيام بمسؤولية الإرشاد والدعوة والتبليغ عن طريق الوعظ والنصح أمام كافة الطبقات من المسلمين

قسم الكتابة والنشر

ومن المسرّة التامة أن الجامعة جعلت تلعب -منذ تأسيسها- دورًا بالغًا في مجال الكتابة والنشر. فعلى رأس كلّ سنة تصدر من هذا القسم مذكرة دينية باسم "الرسالة المحمّدية" (پيغام محمدي). وكذا تصدر صحيفتان جداريتان عدّة مرّات في كل سنة باسم "الصبح المحمدي"  (بالعربية) و"أنوار الحراء" (بالبنغالية). وأحيانًا تطلع مجلة عربية دينية أدبية باسم "مجلة الإيمان"

:مشاريعها

بفضل الله تعالى وكرمه أن الجامعة جعلت تتقدّم إلى أهدافها وغاياتها، وقد طار صيتها إلى أقطار الدولة وخارجها، ولفتت أنظار الطبقة المثقفة إلى حدّ يعتدّ به. ومع هذا قد بقي لها من المشاريع والخطوات ما يأتي ذكرها فيما يلي

  • بدء "قسم التخصّص في التفسير وعلوم القرآن"
  • ... "قسم التخصّص في علوم الحديث الشريف"
  • ... "قسم التخصّص في اللعة العربية وآدابها"
  • ... "شعبة تعليم اللغة الوطنية والثقافة الإسلامية"
  • إنشاء مبنى الفصول الدراسية
  • إصدار مجلة بنغالية شهرية

  

:تسهيلات للطلاب من قبل الجامعة

ا(1) مجانية التعليم وتسهيلات أخرى 

تعليم الجامعة مجاني في جميع المراحل والأقسام وتضاف إلى مجانية التعليم تسهيلات ومساعدة متنوعة، يوزع على كل طالب الكتب الدراسية على طريق العارية كما يهيأ له المسكن والمطعم والملبس وغيرها.

ا(2) كفالة الأيتام

في بنغلادييش ألاف من الأيتام الذين لا يجدون ما يغنيهم من المأكل والمشرب والملبس والمسكن ولايوجد أحد من يقوم بكفالة هذه الأيتام المفتقرين إلى العطف والرعاية والتربية فقامت الجامعة بكفالة عدد كبير من الأيتام كي لا يضيعوا من غير تعليم وتربية

الموارد المالية

لا يخفى عليكم -أحباب الكرام السادة- أن للجامعة ليست أوقافا مخصوصة وموارد خاصة تعتمد عليها، ولا أية مساعدة مالية من عند الحكومة، وإن من مبادئ أصول الجامعة أن لا يطلب أية مساعدة مالية من الحكومة لتكون حرة عن سلطان الحكومة وتبقى حرمتها في إعلاء كلمة الحق وتحقيق أهدافها  وأداء مهماتها، ولتستقل الجامعة في التعليمات الإسلامية والخدمات الدينية ونظومها الراقية

  • مصارف الجامعة الشهرية من رواتب الأساتذة الكرام والمؤظفين تبلغ قرابة 00000 ألف درهم
  • مصارف الطلاب الشهرية من الطعام وغيره تبلغ قرابة 00000 ألف درهم
  • مصارف شتى شهرية تبلغ قرابة 00000 ألف درهم
  • مجموع المصارف الشهرية قرابة 00000 ألف درهم
  • مجموع المصارف السنوي قرابة 00000 ألف درهم

وكل ذلك من تبرعات أصحاب الخير وصدقاتهم من الشعب المسلم بفضل الله سبحانه وتعالى، وأما الصدقات الواجبة من الزكاة وغيرها فللأيتام والمساكين

  

طلب متواضع إلى المسلمين المحسنين

الحمد لله ربّ العالمين والصلاة والسلام على سيّدنا محمد و على آله  و أصحابه أجمعين . أما بعد! 

فإن جامعتنا لتنفيذ مشاريعها العظيمة و تحقيق أهدافها الدينية و إدارة برامجها بحاجة إلى مبلغ المصاريف الكبير. وتغطية هذه المصاريف ليست بمقدور جامعتنا؛ لأن جميع مصاريفها تغطّى من الإعانات والصدقات والتبرعات النقدية التي يقدّمها أهل البرّ والاحسان من الإخوة المسلمين

نظرا إلى هذه الحقائق نرجو من حضراتكم أن تمدّوا يد العون والمساعدة حسب استطاعتكم ومقدوراتكم كي يمكن لنا إدارة شعبها وتثبيت خطواتها في أسرع وقت ممكن . والله ولي التوفيق والمعين

  

    A/c No - 0541220000058

Al arafa Islami Bank Limited

Golshan Branc, Dhaka-1213

  

عنوان المراسلات

الجامعة المحمدية الإسلامية، كرائيل، بى تى سى ايل كالوني، بنـاني، داكا - 1213، بنغلاديــش

الهاتف: 9872700، الجوال : 01552380059 88

 


Introduction

JAMIA MUHAMMADIA ISLAMIA MADRASA  is a renowned, familiar Qawmee (non governmet) Islamic Academy in whole country. It is an institute established on the model of Prophet Mohammad Sallellahu Alaihi Wasallam and Sahaba Raziallahu Taˈala Azmayeen. The Jamia is Teaching and directing according to the world famous Islamic education named  Darul Ulum Deuband’s Curriculum.

Name : JAMIA MUHAMMADIA ISLAMIA MADRASA  

Address : KARAIL BTCL COLONY,ROADNO 5, BANANI, DHAKA 1213

Established: 1994 (0000 Hijri)

Academic Department :

  1. Nurani Maktab,
  2. Nazera ,
  3. Hifz,
  4. Kitab,
  5. Ifta,
  6. Computer Training
  7. Islam Publications
  8. Orphans
  9. Lies on Allah (Lillah Beding)

Madrasah Area: 1.50 Acre 

Total Student: Over 500

Total Teacher And Staff:  45

Monthly expenses : 1100000 (Eleven Lac Taka)

Funds :

The madrasah is mainly financed by donations and it maintains five funds. They are

  1. general fund,
  2. poor-orphan fund,
  3. building fund,
  4. books fund and
  5. scholarships fund.

Website: 

Special Request

Assalamualikum Warahmatullah

Jamia Muhammadia Islamia builds for the multiple sense of Islam. This academy is different largest Islamic Educational Project. All type of supports such as free foods, books, cloth, treatment, accommodation and financial support for talent needy students and poor orphan as well as scholar students are available from the Madrasa.

Please help to the great guest of Rasulullah Sallellahu Aalihiwasallam to spread Islam whole over the world. On the way contribute continues donation (sadka e jaria) that one will get after life.   

JAMIA MUHAMMADIA ISLAMIA MADRASA  

 

Introduction : Jamia Muhammadia Islamia Madrasa is a distinguished Qawmi Islamic university in Bangladesh. The jamiah was established in 1994 at Banani, Dhaka, by  Hazrat Moulana Mufti Noman a famous Islamic scholar  and leader of Ittehadul walama in Bangladesh.  It has 500 students and, as of 2015, 32 well qualified teachers. Examinations are held under the supervision of Bangladesh Qawmi Madrasah Education Board.

Location : Jamia Muhammadia Islamia Madrasa is at KARAIL BTCL COLONY , ROAD NO 5, BANANI, DHAKA 1213. It is one of the largest Islamic institutions in Bangladesh.

Description : Our Institution plans to build a very solid academic track record. We have quite a challenging curriculum that is carried out diligently by the dedicated teaching staff. We provide an exceptional atmosphere and an excellent student - teacher ratio that can allow our students to learn and excel in all courses.

Our direction in the future will continue to follow the School Motto to seek Knowledge, to pursuit with Perseverance and Commitment and to achieve Excellence. The blend of old teachers having good traditions with new teachers bringing special skills adds another dimension to Excellence. In large measure, the school can claim considerable achievement. Moreover, constant and regular training in different areas are provided to the faculty members by the principal Maulana Noman Shaheb himself and also by the renowned and most experienced individuals and organizations of Bangladesh .

Jamia Mohammadia Islamia is different largest Islamic charge free Educational Project. All type of supports such as free foods, books, cloth, treatment, accommodation and financial support for talent needy students and poor orphan as well as scholar students are available from the Madrasa.

The Donation of local people is used to pay the salary of teachers, staff, finance new constructions and pay for accommodation, treatment of poverty-stricken students as well as to buy literature for the needy students and to buy reward for meritorious students.

 Maktab Department :  In the medieval Islamic world, an elementary school was known as a maktab, which dates back to at least the 10th century. Like madrasas (which referred to higher education), a maktab was often attached to an endowed mosque. In the 11th century, the famous Persian Islamic philosopher and teacher Ibn Sīnā (known as Avicenna in the West), in one of his books, wrote a chapter about the maktab entitled "The Role of the Teacher in the Training and Upbringing of Children," as a guide to teachers working at maktab schools. He wrote that children can learn better if taught in classes instead of individual tuition from private tutors, and he gave a number of reasons for why this is the case, citing the value of competition and emulation among pupils, as well as the usefulness of group discussions and debates. Ibn Sīnā described the curriculum of a maktab school in some detail, describing the curricula for two stages of education in a maktab school.

Hifj Department:  In the Department the jamia attempt to complete recite the whole holly Quran within four years. We are able to complete it within seven months only by some talent students.

Kitab Department : It is an important and main department of the Jamia.  We are applying multipurpose efforts from the initial level to the Dawra-e-Hadith, Ifta, Tafsir, Usul al-Hadith, Islam History, Arabic and Bengali Literature. Besides Islamic subjects, as a fully fledged Islamic university, it teaches Bengali, English, Mathematics, Philosophy, History, and Geography. It also organizes by Bangladesh Qawmi Madrasa Board.

 Educational pattern

 The jamiah has crossed the international boundary in producing efficient and intellectual ulama by applying multipurpose efforts from the initial level to the Dawra-e-Hadith, Ifta, Tafsir, Usul al-Hadith, Islam History, Arabic and Bengali Literature. Besides Islamic subjects, as a fully fledged Islamic university, it teaches Bengali, English, Mathematics, Philosophy, History, and Geography. It also organizes many programs and seminars to spread the message of Islam.

 To this end, it is well worth remembering that the process of learning is important to create a real Alim or Hafiz. How well we learn with perseverance and commitment will affect the result of learning.

Principle Name . Hazrat Moulana Mufti Noman

 

Teachers, students, and members whom depend on them

All donor member of the firm

TEACHERS    36

STAFF             10

STUDENTS 600

DONOR MEMBER    UNCOUNTABLE


জামিয়ার সংবাদ


প্রবন্ধ-নিবন্ধ


সকল প্রশ্ন উত্তর


প্রশ্ন করুণ


আপনার প্রশ্নটি লিখুন এবং আমাদের কাছে পাঠান

প্রশ্নের উত্তর ১০-১৫ দিনের মধ্যে দেয়ার চেষ্টা করা হয়। সে পর্যন্ত ধৈর্য সহকারে অপেক্ষা করার অনুরোধ রইল।

উত্তর দ্রুত পাওয়ার জন্য এই নাম্বারে যোগাযোগ করুন : Call to contact us : +8801935477080